বিদ্যাসাগর স্মৃতি বিদ্যালয়ে আপনাকে স্বাগতম একটি পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

১৯৯৫ সালের কয়েকজন শিক্ষক ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি এই বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন । তৎকালীন সময় বিদ্যালয়ে পাশ ফেল প্রথা ও ইংরেজি ভাষা তুলে দেওয়া হয়েছিল । প্রতিষ্ঠাতারা পাশ ফেল প্রথার গুরুত্ব ও ভারতবর্ষে তথা বিশ্বে ইংরেজি যোগাযোগের ভাষা হিসাবে ও জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার ভাষা হিসেবে গুরুত্ব উপলব্ধি করেছিলেন । এই এলাকার ছেলেমেয়েদের যাতে উন্নত শিক্ষা দেওয়া যায় সে উদ্দেশ্যেই এই ক্ষুদ্র প্রতিষ্ঠান ।


আমাদের লক্ষ্য ছাত্র-ছাত্রীদের কেবলমাত্র পাঠ্যপুস্তক এর মধ্যে সীমাবদ্ধ না করে তাদের সার্বিক বিকাশ ও স্বাধীনতা সংগ্রামী ও মহান মনীষীদের জীবন চর্চার মধ্যে দিয়ে কর্তব্য পরায়ন নাগরিক গড়ে তোলা । এলাকার জনসাধারণ উক্ত বিষয়ে সহযোগিতা করে চলেছেন । ধীর হলেও ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গি বাইরে এসে আমাদের প্রতিষ্ঠান উক্ত লক্ষ্যে অবিচল ।



শ্রেণি কাঠামোআমাদের বিদ্যালয়ের শ্রেণী কাঠমো

অঙ্কুর শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  বাংলা ছড়া
  English Rhyme
  বাংলা হাতের লেখা
  English Handwriting

কিশলয় শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  বাংলা ছড়া
  English Rhyme
  বাংলা হাতের লেখা
  English Handwriting

প্রথম শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  সাধারণ জ্ঞান
  Conversation
  ছবি আঁকা
  শারীর শিক্ষা

দ্বিতীয় শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  ইতিহাস
  সাধারণ জ্ঞান
  Conversation
  ছবি আঁকা
  শারীর শিক্ষা

তৃতীয় শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  ইতিহাস
  ভূগোল
  বিজ্ঞান
  সাধারণ জ্ঞান
  Conversation
  ছবি আঁকা
  Computer
  English Grammar
  বাংলা ব্যাকরণ
  মনীষীদের কথা
  শারীর শিক্ষা

চতুর্থ শ্রেণী

  বাংলা
  ইংরেজি
  গণিত
  ইতিহাস
  ভূগোল
  বিজ্ঞান
  সাধারণ জ্ঞান
  Conversation
  ছবি আঁকা
  Computer
  English Grammar
  বাংলা ব্যাকরণ
  মনীষীদের কথা
  শারীর শিক্ষা

আমাদের পরিসংখ্যান১৯৯৫ সাল থেকে আমাদের বর্তমান মুহূর্ত পর্যন্ত পরিসংখ্যান

বর্তমান ছাত্র / ছাত্রী

382

প্রত্যয়িত শিক্ষক / শিক্ষিকা

16

পাস আউট ছাত্র / ছাত্রী

1050

পরিতৃপ্ত অভিভাবক

640

আমাদের সময়রেখার ইতিহাসআমাদের বিদ্যালয়ের সময়রেখার ইতিহাস

  • ২০২০

    360SchooApp, Website ও CCTV Camera

    বিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ কাজকর্ম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য 360SchooApp সফটওয়্যার নেওয়া হয় এবং বিদ্যালয়ের নিজস্ব একটি ওয়েবসাইট চালু করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সিসিটিভি ক্যামেরা বিদ্যালয় চত্বরে লাগানো হয় । ছাত্রছাত্রীরা যাতে ইংরেজি ভাষা শিক্ষায় আরো সাবলীল হয় তার জন্য Spoken English এর ক্লাস চালু করা হয়।

    ২০১৯

    অগ্নি নির্বাপক সিলিন্ডার বসানো

    বিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ অন্যান্য মনীষীদের স্মরণ অনুষ্ঠানের জন্য তিনতলায় হলঘর নির্মাণ সম্পন্ন হয়। যা শ্রেণীকক্ষের অপ্রতুলতাও দূর করে। এবং ছাত্র-ছাত্রীদের সুরক্ষার জন্য অগ্নিনির্বাপক সিলিন্ডার বসানো হয়।

    ২০১৬

    সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ

    বিদ্যালয় পরিচালন কমিটির সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন যথাক্রমে জয়নাল আবেদীন মহাশয় ও রুহুল আমিন মহাশয়।

    ২০১৫

    Full Free ও Half Free কোটা চালু

    আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের Full Free ও Half Free কোটায় পড়ানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

    ২০১১

    কম্পিউটারের প্রাথমিক পাঠ দেওয়ার ব্যবস্থা

    আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে ছাত্রছাত্রীদের সহজ-সরলভাবে পরিচয় করানোর প্রচেষ্টা হিসাবে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর জন্য কম্পিউটারের প্রাথমিক পাঠ দেবার ব্যবস্থা করা হয় ।

    ২০০৮

    প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ

    প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন আসাদ আলি। ক্রমবর্ধমান ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নতুন নতুন শ্রেণীকক্ষের প্রয়োজন হয়ে পড়ে । এলাকার শিক্ষানুরাগী ব্যাক্তিদের নির্মোহ দানে প্রতিষ্ঠান এগিয়ে চলে ।

    ২০০৫

    বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশন

    বিদ্যালয়ের সভাপতি বিমল কৃষ্ণ বিশ্বাস, সম্পাদক ইস্রাইল হক সাহেব ও প্রধান শিক্ষক আব্দুস সোভান সাহেব বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশন করানোর জন্য তৎপর হন। ২০০৬ সালে আর.টি. বিদ্যাসাগর স্মৃতি বিদ্যালয়ের সোসাইটি হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করানো হয়। ঐ বছরই প্রথম পাকা শ্রেণীকক্ষ নির্মাণ করা হয় ।

    ২০০২

    বিদ্যালয়ের নিজস্ব জমি কেনা

    বিদ্যালয় পরিচালন সমিতির সম্পাদক ইস্রাইল হক সাহেব, সভাপতি মৃগাঙ্ক মোহন দেবরায় মহাশয় ও জমির মালিক এবং সদস্য রেজাউল সরকার ও অন্যান্য সদস্যদের ঐকান্তিক চেষ্টায় বিদ্যালয়ের নিজস্ব জমি কেনা সম্ভব হয় ।

    ১৯৯৫

    বিদ্যালয় এর জন্ম

    ১৯৯৫ সালের ২৪ এপ্রিল কতিপয় শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি রানীনগর এলাকায় উন্নত শিক্ষা প্রসারের উদ্দেশ্যে এই বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। এলাকার বিশিষ্ট শিক্ষক শ্রী দ্বীজপদ পাল মহাশয়ের সূপরামর্শে বিদ্যালয় আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়েই পথ চলা শুরু করে ।

বিদ্যালয়ের বৈশিষ্ট্যআমাদের বিদ্যালয়ের কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট রয়েছে

অভিজ্ঞ শিক্ষক / শিক্ষিকা দ্বারা পঠন-পাঠন

ইংরেজিকে ভাষাকে বিশেষ গুরুত্ব

শিক্ষার্থীর জ্ঞানের পরিসর বিবেচনা

আনন্দদায়ক এবং সক্রিয়তা ভিত্তিক পঠন পাঠন

শিশুর অনুসন্ধিৎসাকে বিশেষ গুরুত্ব

শিশুর চিন্তার অবকাশ ও বিশ্লষনাত্মক দৃষ্টি জাগরিত করা

শরীর চর্চার যথাযথ অনুশীলন করা

শৃংখলাবদ্ধ শ্রেণি পরিবেশের ব্যাবস্থা

বিদ্যালয় এবং অভিভাবকের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক

প্রশংসাপত্রঅভিভাবকদের, আমাদের প্রতি মন্তব্য

পরিচালনা পর্ষদের সদস্যআমাদের বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য

রুহুল আমিন

সম্পাদক

আলহাজ্ব ইসরাইল হক

সহসম্পাদক

জয়নাল আবেদীন

সভাপতি

মনোজিৎ পান্ডে

সহ-সভাপতি